Amardesh
আজঃ    আপডেট সময়ঃ

বামনায় বখাটে কর্তৃক কলেজ ছাত্রীকে উত্যক্ত ও মারধরের প্রতিবাদে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

নির্ঝর কান্তি বিশ্বাস ননী,বামনা
বরগুনার বামনা উপজেলার বেগম ফায়জুন্নেসা মহিলা ডিগ্রী কলেজের ছাত্রীকে স্থানীয় নকিব হাসান ফারদিন(২০) নামে এক বখাটে কর্তৃক উত্যক্ত ও মারধরের প্রতিবাদ ও বিচারের দাবীতে কলেজের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা গতকাল সোমবার মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। এদিকে এ ঘটনায় ভ‚ক্তভোগী কলেজ ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে রবিবার রাতে বামনা থানায় অভিযুক্ত বখাটে নকিব হাসান ফারদিনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত বখাটে পলাতক। সে বামনা সদরের এইচএম বদিউজ্জামান বদু আকনের ছেলে। এঘটনার প্রতিবাদে অভিযুক্ত বখাটের বিচারের দাবীতে ওই কলেজ ছাত্রীর সহপাঠি ও শিক্ষকরা কলেজ সম্মুখ সড়কে ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন করে। এতে দেড় কিলোমিটার সড়ক জুড়ে ছয় শতাধিক শিক্ষক শিক্ষার্থী ও অভিবাবকরা অংশ নেন। এসময় ভুক্তভোগী কলেজ ছাত্রীর বাবা ও পরিবারের স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন শেষে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন, কলেজ অধ্যক্ষ সৈয়দ মানজুরুর রব মুর্তাযা আহসান, ভারপ্রাপ্ত উপাধ্যক্ষ মোহাম্মদ মহসীন কবির, প্রভাষক মো. আশরাফুল হাসান লিটন, অভিভাবক শিক্ষক সমীর রঞ্জন দাশ ও কলেজ ছাত্রী আফসানা আমীর মিম প্রমূখ। ভ‚ক্তভোগী কলেজ ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ,স্থানীয় বদু আকনের বখাটে ছেলে দীর্ঘদিন ধরে কলেজে আসা যাওয়ার পথে উত্যক্ত করে আসছিলো। গত রবিবার বিকেলে মেয়েটি প্রাইভেট পড়া শেষে বাসায় ফেরার পথে তার পথ রোধ করে। একপর্যায়ে ওই বখাটে মেয়েটির গায়ে হাত তুলে শ্লীতাহানীর চেষ্টা চালায় । এসময় মেয়েটি ডাক চিৎকার দিলে ওই বখাটে মেয়েটিকে মারধর করে পালিয়ে যায়। এঘটনায় ভ‚ক্তভোগী মেয়েটির বাবা ঘটনার দিন রাতেই বামনা থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পুলিশ এখনো অভিযুক্ত বখাটেকে গ্রেফতার করতে পারেনি। এব্যাপারে বামনা থানার অফিসার ইন চার্জ মো. ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নির্যাতিত মেয়েটির পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়ের করেছে। অভিযুক্ত বখাটে ঘটনার পর থেকে পলাতক। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।