Amardesh
আজঃ    আপডেট সময়ঃ

ক্ষমতা দখলকারী রাষ্ট্রপতিরা অবসরভাতাসহ অন্যান্য সুবিধা পাবেন না

ডেস্ক রিপোর্ট
অসাংবিধানিকভাবে ক্ষমতা দখল করা কোনো রাষ্ট্রপতি অবসরভাতাসহ অন্যান্য সুবিধা পাবেন না। এমন বিধান রেখে নতুন আইন করতে যাচ্ছে সরকার, যা আজ সোমবার মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে চূড়ান্ত অনুমোদন পেয়েছে।
সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে ‘রাষ্ট্রপতির অবসরভাতা, আনুতোষিক ও অন্যান্য সুবিধা আইন, ২০১৫’-এর খসড়াটি উত্থাপন করা হয়।
বৈঠক শেষে অনুষ্ঠিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা বলেন, আগের অধ্যাদেশে অনুযায়ী আদালত একজন রাষ্ট্রপতিকে নৈতিক স্খলন বা অন্য কোনো অপরাধে দণ্ড দিলে তিনি অবসরভাতা পাওয়ার যোগ্য হবেন না। কিন্তু মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত নতুন আইন অনুযায়ী, অসাংবিধানিক পন্থায় বা অবৈধ উপায়ে রাষ্ট্রপতি হওয়ার বিষয়টি আদালত ঘোষণা করলে তিনিও অবসরভাতা ও অন্যান্য সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশে রাষ্ট্রপতির পদ থেকে অবসরে যাওয়ার পর অবসরভাতা বা অন্যান্য সুবিধার বিষয়টি নির্ধারিত হয় ১৯৭৯ সালের ‘প্রেসিডেন্টস পেনশন অর্ডিনেন্স’ অনুযায়ী। ১৯৮৮ সালে অধ্যাদেশটি সংশোধন করা হয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবার কখনো অবসরভাতা পায়নি, কারণ ওই আইনটি হয়েছিল ১৯৭৯ সালে। তবে জাতীয় সংসদে নতুন এই আইন পাস হলে বঙ্গবন্ধুর উত্তরাধিকারীরা তা পেতে পারেন।
সংবিধানের সপ্তম সংশোধনী বাতিল করে ২০১০ সালে হাইকোর্টের রায়ে খন্দকার মোশতাক আহমেদ, আবু সা’দাত মোহাম্মদ সায়েম ও জিয়াউর রহমানের মতো এইচ এম এরশাদকেও অবৈধ ক্ষমতা দখলকারী হিসেবে উল্লেখ করা হয়।