Amardesh
আজঃ
 
 সাপ্তাহিকী
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

পরিবর্তনের জন্য অপেক্ষা করতে হবে

ডেস্ক রিপোর্ট
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারের জন্য গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের সংখ্যার পরিবর্তন হবে। তবে তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।
মঙ্গলবার রাজধানীi হোটেল সোনারগাঁওয়ে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকেদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।
প্রসঙ্গত,আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল ১ ও ২ ভেঙ্গে একটিতে পরিনত করার কথা দীর্ঘদিন ধরে শোনা যাচ্ছে।
দেশে শিশুসহ বিভিন্ন নির্যাতনের ঘটনা বেড়ে যাওয়ার বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আইনমন্ত্রী বলেন, কয়েক দিন আগে পত্রিকায় দুজনকে গাছের সঙ্গে বেধে নির্যাতনের ছবি এসেছে তবে পরে সেটি অসত্য প্রমাণিত হয়েছে। যে সব ঘটনার প্রমাণ পাওয়া যাবে সে সব অপরাধের ব্যাপারে বিচার অত্যন্ত দ্রুত হবে। রাষ্ট্রপক্ষ অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক সাজার জন্য আদালতের কাছে প্রার্থনা করবে।
তিনি আরো বলেন ,আইন মন্ত্রণালয় প্রসিকউশনকে তৈরি করে রেখেছে রাজন হত্যা মামলার ব্যপারে। আশা করছি খুব দ্রুততার সঙ্গে এই বিচার আমরা শুরু করবো।
সমাজে অপরাধ প্রবণতার সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, আমার তো ধারণা আমাদের যে মানসিকতা সেটার পরিবর্তন অত্যান্ত প্রয়োজনীয়।
বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির বিষয়ে বলেন, মন্ত্রী বলেন, কেউ চায় না মামলা জটের মধ্যে থাকতে। আমাদের ব্যবসায়ী সম্প্রদায় যদি মামলা জটের মধ্যে পড়েন তাহলে তাদের অপরিসীম ক্ষতি হয়। মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করতে পারলে তারা কাজ সম্পন্ন করতে পারেন। দেশের উন্নতি হয় এবং দেশ এগিয়ে যায়। কোর্টের বাইরে সমস্যা সমাধানের যে প্রচেষ্টা তাকে এগিয়ে নিয়ে যেতেই হবে। সেটা নিয়েই বৈঠক হয়েছে। এ ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা যেটা আছে সে গুলি কিভাবে দূর করা যায় সেগুলো নিয়ে আলোচনা করেছি।
মন্ত্রী আরো বলেন, মানবপ্রাচার বিষয়ে ট্রাইব্যুনালের সংখ্যা এবং বিচারক বাড়ানোর প্রস্তাব এসেছে। আমরা ৪৫৭ জন বিচারক তার সঙ্গে লোকবল মিলিয়ে ১ হাজর ৪৪ জনের সংস্থান করে একটি প্রস্তাব জন প্রসাশন ও অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি। আশা করি খুব শিগগিরই আপনারা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত দেখতে পাবেন।
এসময় সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হক উপস্থিত ছিলেন।