Amardesh
আজঃ
 
 সাপ্তাহিকী
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

সরিষাবাড়ীতে কুপ্রস্তাব দেয়ায় ছাত্রীর জুতা বখাটের গালে

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে এক ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব দেয়ায় বখাটেকে জুতাপেটা করার ঘটনা ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার সকাল সাডে নয়টার দিকে স্কুলে যাওয়ার পথে খাগুরিয়া ঈদগাহ মাঠ সংলগ্ন রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। উত্ত্যক্তকারী বখাটেদের ভয়ে স্কুল ছাত্রীর পড়াশোনা বন্ধ হয়ে গেছে। এ ঘটনায় এলাকার ছাত্রীদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে বলে অভিভাবকরা জানিয়েছেন। শিক্ষার্থী ও তার পরিবার সুত্রে জানা গেছে, সরিষাবাড়ীর ডোয়াইল ইউনিয়নের চর বালিয়া গ্রামের বিলবালিয়া মহিলা দাখিল মাদ্রাসার সহকারী সুপার সুরুজ কাজীর বখাটে ছেলে সজিব ও তার বন্ধু রুবেল একই গ্রামের কোমর উদ্দিনের মেয়ে সেঙ্গুয়া শেখ খলিলুর রহমান ভোকেশনাল স্কুলের নবম শ্রেণীর ছাত্রী কনিকাকে বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার পথে আপত্তিকর অশ্লীল কথাবার্তা বলে উত্ত্যক্ত করতো। গত বৃহস্পতিবার সাড়ে নয়টায় স্কুলে যাওয়ার পথে পথরোধ করে আপত্তিকর কথা বলে কুপ্রস্তাব দিলে স্কুল ছাত্রী নিরুপায় হয়ে পায়ের জুতা খুলে বখাটে সজিবকে জুতা পেটা করে। এ ঘটনা ঐ ছাত্রী তার বান্ধবী তানিয়ার পিতা আব্দুল করিমকে জানান। আব্দুল করিম সজিবের পিতা সুরুজ কাজীকে বিষয়টি অবগত করলেও কোন কাজ হয়নি। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করে। বিষয়টি সজিবের পিতা সুরুজ কাজীর কাছে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে অত্যান্ত দাম্ভিকতার সাথে বলেন, তথ্য নিয়ে আপনি লিখে যা করতে পারেন তা করেন গা। এ ব্যাপারে বান্ধবী তানিয়া বলেন, মাঝে মধ্যেই বখাটে সজিব বাজে কথা বলে উত্যাক্ত করে আসছে। এ ঘটনার পর থেকেই আমাদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ রয়েছে। উত্ত্যাক্তের শিকার স্কুল ছাত্রী কনিকা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমাকে প্রতিনিয়ত আপত্তিকর কথা বলায় সহ্য করতে না পেরে আমি জুতা খুলে সজিবের গালে মেরেছি। এতে সজিব ক্ষুব্ধ হয়ে আমাকে আরও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং স্কুলে যেতে দেবেনা বলে হুমকি দেয়। এর পর থেকে ভয়ে স্কুলে যেতে পারছিনা, বাড়িতেও পড়াশোনা প্রায় বন্ধ।