Amardesh
আজঃ
 
 সাপ্তাহিকী
 
আবহাওয়া
 
 
আর্কাইভ: --
 

ধর্মপাশায় পুলিশের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেল পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রী

ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি
« আগের সংবাদ
পরের সংবাদ»
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের মোদাহরপুর গ্রামে সোমবার দুপুরে থানা পুলিশের হস্তক্ষেপে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়–য়া এক স্কুল ছাত্রীর (১১) বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে।
এলাকাবাসী,প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের মোদাহর পুর গ্রামের মোদাহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনিতে পড়–য়া ওই ছাত্রীর (১১)সঙ্গে পাশ্ববর্তী ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নের টান মেউহারী গ্রামের কৃষক আব্দুর রশিদের ছেলে সাইদুল ইসলামের(২৩) সঙ্গে বিয়ের দিন ধার্য ছিল গতকাল সোমবার। আর বিয়ের প্রস্তুতি স্বরুপ বর ও কনের বাড়িতে চলছিল সাজ সাজ আয়োজন। বেলা তিনটার দিকে বর সহ বরপক্ষের লোকজন কনের বাড়িতে আসার কথা ছিল। ওইদিন স্থানীয় লোকজন বাল্য বিয়ের আয়োজনের বিষয়টি সকাল ১১টার দিকে থানা পুলিশকে জানান। খবর পেয়ে পুলিশ দুপুর দেড়টার দিকে কনের বাড়িতে যান। সেখানে গিয়ে স্থানীয় মাতব্বরদের নিয়ে বাল্য বিয়ের কুফল ও রাষ্ট্রীয় আইনে বাল্য বিয়ের স্বীকৃতি না থাকার বিষয়টি কনের মা ,বাবা ও তাঁদের স্বজনদের বুঝিয়ে বললে তাঁরা এ বিয়ের আয়োজন বন্ধ করে দেন। আর এ থেকেই রক্ষা পায় পঞ্চম শ্রেনিতে পড়–য়া ওই স্কুল ছাত্রী। ধর্মপাশা থানার এসআই রায়হান উদ্দিন এ খবরটির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,বাল্য বিয়ের বিষয়টি ওই ছাত্রী মা ও বাবার জানা ছিল না। মেয়েটির বয়স ১৮ পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত তাঁকে কোথাও বিয়ে দেবেন না বলে তাঁরা লিখিতভাবে অঙ্গীকার করেছেন।